রংপুর সিটি কর্পোরেশনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বাষির্কী ও জাতীয় শোক দিবস পালন ।

  

প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন,শোকর‌্যালী, পুষ্পমাল্য অর্পন,চিত্রাঙ্গন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা,দোয়া মাহফিল ও দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরনের মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বাষির্কী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে রংপুর সিটি কর্পোরেশন । কর্মসুচীর শুরুতে সকালে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টুর(প্রতিমন্ত্রী) নেতৃত্বে একটি র‌্যালী বের হয়ে ডিসির মোড় চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এরপর রসিক অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। উক্ত আলোচনা সভায় রসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আখতার হোসেন আজাদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দিন আহম্মেদ ঝন্টু(প্রতিমন্ত্রী)স্বাগত বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর ইদ্রিস আলী, কাউন্সিলর গোলাম কবীর কাজল,কাউন্সিলর হারাধন চন্দ্র রায়, সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর হাফিজা খাতুন পান্না, রসিকের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন, রসিকের সচিব আবু ছালেহ মোঃ মুসা জঙ্গী, অনুষ্ঠানে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের সকল কাউন্সিলর সহ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মেয়রবলেন, বাংলাদেশকে সুখি,সমৃদ্ধশালী ও অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়তে সবাইকে এক কাতারে এসে কাজ করতে হবে এবং সন্ত্রাস নৈরাজ্যবাদ ও জঙ্গীদের মোকাবেলা করতে হবে। তাই আজকের এই দিনে শোককে শক্তিতে পরিণিত করে সত্যিকার অর্থে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করে যেতে হবে।
এর আগে কর্মসূচীর মধ্যে ছিল গত সোমবার সন্ধ্যাায় পায়রা চত্বরে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপর প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন, মঙ্গলবার সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধ নির্মিত, কালো পতাকা উত্তোলন, ও গবির মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরন করা হয় ও গত রোববার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ শীর্ষক দুটি বিষয়ের উপর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় আয়োজন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রোববার রসিক অডিটরিয়ামে রংপুর সিটি কর্পোরেশনে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রোববার রসিক অডিটরিয়ামে রংপুর সিটি কর্পোরেশনে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রংপুর সিটি কর্পোরেশন এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।উক্ত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার রসিকের সচিব আবু ছালেহ মোঃ মুসা জঙ্গীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু (প্রতিমন্ত্রী)। এছাড়া অনুষ্ঠানের অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা সেলিম মিয়া, শিক্ষা কর্মকর্তা মশিউর রহমান খান , প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাজ্জাদুর রহমান, প্রমুখ।

উক্ত প্রদর্শনীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ শীর্ষক দুটি বিষয়ের উপর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার মোট ৪৫জন প্রতিযোগী অংশগ্রহন করে।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে এক প্রস্তুতিমূলক সভার রেজুলেশন

জাতীয় শোক দিবস ২০১৭ প্রস্তুতিমূলক সভার রেজুলেশন

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে এক প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত ।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস  পালন উপলক্ষে এক প্রস্তুতিমূলক সভা  সিটি কর্পোরেশনের সভা কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। আগামী ১৫ আগষ্ট নানা কর্মসুচী পালনের লক্ষে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের এ সভার আয়োজন করে। কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু (প্রতিমন্ত্রী) সভাপতিত্বে  সভায় উপস্থিত ছিলেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আকতার হোসেন আজাদ, রসিকের সচিব আবু ছালেহ মোঃ মুসা জঙ্গী, রসিকের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন, মাননীয় মেয়র মহোদয়ের একান্ত সচিব রাশেদুল ইসলাম সহ সকল কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

মেয়র বলেন শোকাবহ ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। ইতিহাসের বেদনাবিধুর ও বিভীষিকাময় এক দিন।  ১৯৭৫ সালের এইদিন অতিপ্রত্যুষে ঘটেছিল ইতিহাসের সেই কলঙ্কজনক ঘটনা। সেনাবাহিনীর কিছু উচ্ছৃঙ্খল ও বিপথগামী সৈনিকের হাতে সপরিবারে প্রাণ দিয়েছিলেন বাঙালির ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ সন্তান, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।বাংলাদেশ ও বাঙালির সবচেয়ে হদয়বিদারক ও মর্মস্পর্শী শোকের দিন ১৫ আগস্ট আসে বাঙালির হূদয়ে শোক আর কষ্টের দীর্ঘশ্বাস হয়ে।

প্রস্তুতিমূলক সভায় আগামি ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে দিনব্যাপী নানা কর্মসুচী গ্রহন করা হয়।

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (রসিক) ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা

উন্নয়ন অনুদান ও কর আদায় আয়ের মূল খাত দেখিয়ে নতুন কোন করারোপ ছাড়াই রংপুর সিটি করপোরেশনের (রসিক) ২০১৭-১৮ অর্থবছরের ১ হাজার ১২ কোটি ৭৮ লাখ ২৯ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। যা গত অর্থবছরের চেয়ে ২১১ কোটি ৫৪ লাখ ২২ হাজার টাকা বেশি। গতকাল দুপুরে নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে বাজেট ঘোষণা করে মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু বলেন, বাজেটে নতুনভাবে করারোপ না করে  এর আওতা বাড়ানো হয়েছে।

পঞ্চমবারের মতো ঘোষিত বাজেটে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ হাজার ১২ কোটি ৭৮ লাখ ২৯ হাজার ৪০৮ টাকা। যার মধ্যে রাজস্ব খাতে প্রারম্ভিক স্থিতি ১৯ কোটি ৭ লাখ ৭৫ হাজার ১৬০ টাকাসহ আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৯০ কোটি ৮৫ লাখ ৫২ হাজার ৬৪ টাকা এবং উন্নয়ন প্রকল্প খাতে প্রারম্ভিক স্থিতি ২২ কোটি ৯২ লাখ ৭৭ হাজার ৩৪৪ টাকাসহ আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৯শ’ ২১ কোটি ৯২ লাখ ৭৭ হাজার ৩৪৪ টাকা। এবারের বাজেটে রাজস্ব খাতের স্থাবর সম্পত্তি বিনিময় ও এফডিআর থেকে সর্বোচ্চ ১৫ কোটি টাকা করে এবং উন্নয়ন সহায়ক খাতে বৈদেশিক সাহায্যপুষ্ঠ বিভিন্ন প্রকল্প থেকে সর্বোচ্চ ৪শ’ কোটি ও সিজিপি (জাইকা) থেকে ২শ’ কোটি টাকা আয় ও  মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ১২ কোটি ৩০ লাখ ৭০ হাজার ৩৪৪ টাকা। এর মধ্যে রাজস্ব খাতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৯০ কোটি ৩৭ লাখ ৯৩ হাজার টাকা , উন্নয়ন সহায়ক খাতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৯শ’ ২১ কোটি ৯২ লাখ ৭৭ হাজার ৩৪৪ টাকা। ব্যয়ের চেয়ে আয় বেশি থাকায় বাজেটে উদ্ধৃত্ত দেখানো হয়েছে ৪৭ লাখ ৫৯ হাজার ৬৪ টাকা।উলে­খ্য, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছিল ৮শ’ ১ কোটি ২৪ লাখ ৭ হাজার ৬২০ টাকা।  এর আগে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাজেট ঘোষণা করা হয় ৬শ’ ৪৫ কোটি ৫ লাখ ৭২ হাজার ৭৮৪ টাকা।

বাজেট পেশকালে মেয়র সাংবাদিকদের জানান, নগরীর ভেতর দিয়ে বয়ে যাওয়া শ্যামাসুন্দরী খালের ওপর উড়াল সড়ক নির্মাণ করা হবে। কুয়েত সরকার ও মধ্যপ্রাচের দেশ থেকে অর্থ সহায়তা পাওয়া যাবে। এ উড়াল সেতুর নকশাও তৈরি করা হয়েছে। আশা করছি এই বছরে কাজ শুরু হবে। চেকপোস্ট থেকে তাজহাট পর্যন্ত সাড়ে ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ এই উড়াল সড়ক নির্মাণ করা হলে নগরীর যানজট কমে আসবে। এড়াও হাজিপাড়া থেকে মাহিগঞ্জ পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ আরও একটি সড়ক নির্মাণ করা হবে বলে তিনি জানান।এছাড়াও যানজট নিরসন, বিনোদন কেন্দ্র নির্মাণ, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে সর্বাধিক গুরত্ব দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

বাজেট পেশকালে  রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আকতার হোনেন আজাদ, সচিব আবু সালেহ মো. মুসা জঙ্গি, প্রধান হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা আব্দুল হাকিম, প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলরবৃন্দসহ রংপুরে কর্মরর্ত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সিটি কর্পোরেশনের ৭ নং ওয়ার্ডের বেনুঘাট কামারের দাও মোড় হতে ময়নাকুঠি হয়ে বুড়িরহাট রোড পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার এবং ৮নং ওয়ার্ডের সোয়া ৮ কিলোমিটারের রাস্তা নির্মান কাজের উদ্বোধন

জাইকা ও বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে প্রায় ২১ কোটি টাকা ব্যয়ে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ৭ নং ওয়ার্ডের বেনুঘাট কামারের দাও মোড় হতে ময়নাকুঠি হয়ে বুড়িরহাট রোড পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার এবং ৮নং ওয়ার্ডের চাঁদকুঠি বিধু মাষ্টারের বাড়ী হতে লাবুর দোকান পর্যন্ত ও মুহাব্বত খাঁ এ্যাডভোকেটের বাড়ী হতে হেলিপ্যাড পর্যন্ত সোয়া ৮ কিলোমিটারের রাস্তা নির্মান কাজের উদ্বোধন করলেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু (প্রতিমন্ত্রী )।
এ উপলক্ষে বৃহষ্পতিবার ৭নং ওয়ার্ডের ময়নাকুঠিহাট ও চাঁদকুঠির এলাকায় এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এসব আলাদা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু, (প্রতিমন্ত্রী)। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর মাহফুজার রহমান মাফু,কাউন্সিলর আবুল মঞ্জুর কুঠিয়াল,কাউন্সিলর হারাধন চন্দ্র রায়, স্বাগত বক্তব্য রাখেন রসিকের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন, এসব আলাদা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী আজম আলী বিশিষ্ঠ ঠিকাদার ও যুবলীগ নেতা ফয়সাল হোসেন রাসেল, আহসান হাবীব,মোখলেচু রহমান লিখন প্রমুখ।

সিটি কর্পোরেশনের সভা কক্ষে ইনার সার্কুলার রোড নির্মাণ,শ্যামাসুন্দরীখাল পুর্ন খনন,খোকসা ঘাঘট নদী পুর্নখনন, গনেশপুর থেকে টার্মিনাল হয়ে মর্ডাণ মোড় হয়ে ঘাঘট নদী পর্যন্ত আরসিসি ড্রেণ নির্মাণ কাজের র্পূনবাসন পরিকল্পনা বিষয়ক এক সভা অনুষ্ঠিত

গত ০১-০৮-২০১৭ তারিখে  সিটি কর্পোরেশনের সভা কক্ষে ইনার সার্কুলার রোড নির্মাণ,শ্যামাসুন্দরীখাল পুর্ন খনন,খোকসা ঘাঘট নদী পুর্নখনন, গনেশপুর থেকে টার্মিনাল হয়ে মর্ডাণ মোড় হয়ে ঘাঘট নদী পর্যন্ত আরসিসি ড্রেণ নির্মাণ কাজের র্পূনবাসন পরিকল্পনা বিষয়ক এক সভা অনুষ্ঠিত হয় । রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আখতার হোসেন আজাদের সভাপতিত্বে উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু (প্রতিমন্ত্রী)

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের অবসরপ্রাপ্ত বিভিন্ন শাখার ১০জন কর্মচারীকে ৩৮ লাখ টাকা অবসর ভাতা প্রদান

সোমবার  (০১-০৮-২০১৭) রংপুর সিটি কর্পোরেশনের   অবসরপ্রাপ্ত বিভিন্ন শাখার ১০জন কর্মচারীকে ৩৮ লাখ টাকা অবসর ভাতা প্রদান করেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু ।এ সময়  উপস্থিত ছিলেন রসিকের সচিব আবু ছালেহ মোঃ মুসা জঙ্গী  ,তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ এমদাদ হোসেন ও বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরবৃন্দ ।

 

জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে অবহিতকরন সভার আয়োজন ।

 

মঙ্গলবার (০১-০৮-২০১৭) রসিক সভা কক্ষে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন (১ রাউন্ড) আগামি ৫ আগষ্ট উপলক্ষে এক অবহিতকরন ও পরিকল্পনা সভার আয়োজন করা হয়।
রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আখতার হোসেন আজাদের সভাপতিত্বে উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু (প্রতিমন্ত্রী) বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রংপুর স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডাঃ মোজাম্মেল হোসেন, এছাড়া অনান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর আকরাম হোসেন, কাউন্সিলর জহিরুল ইসলাম আজাব্বর, কাউন্সিলর নিজামুল হাসান বাদল,কাউন্সিলর হাফিজ আহম্মেদ ছুট্টু,কাউন্সিলর ফজলে এলাহী ফুলু,রসিকের সচিব আবু ছালেহ মোঃ মুসা জঙ্গী, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা কামরুজ্জামান ইবনে তাজ, স্বাস্থ্য পরিদর্শক আব্দুল কাইয়ুম প্রমুখ। সভায় জানানো হয় রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ৩৩টি ওয়ার্ডে ২৯৫ টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৩৩ জন প্রথম সারির ,৭জন দ্বিতীয় সারির, ৪জন তৃতীয় সারির সুপার ভাইজার ও ৬৩৪ জন স্বেচ্ছাসেবীর মাধ্যমে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৫০০ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে । ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী ১৯ হাজার ৫০০জন শিশুকে নীল রংয়ের এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী ১ লাখ ৭ হাজার জন শিশুকে লাল রংয়ের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে । 

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা রংপুর সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত নব নির্মিত একটি মাতৃসদন ও তিনটি নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শন করলেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু (প্রতিমন্ত্রী)।